ঐক্যমত্যের ভিত্তিতে তফসিল পুনঃঘোষণা করতে হবে - মুসলিম লীগ

ঐক্যমত্যের ভিত্তিতে তফসিল পুনঃঘোষণা করতে হবে -মুসলিম লীগ

0

নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে আলোচনা করে ঐক্যমত্যের ভিত্তিতে একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল পুনরায় ঘোষণা করার জন্য নির্বাচন কমিশনারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ মুসলিম লীগ। আজ সকাল ১০টায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের সভাপতি এ্যাড. বদরুদ্দোজা সুজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত নবগঠিত কেন্দ্রীয় ওয়ার্কিং কমিটির জরুরী সভায় বিভিন্ন জেলা থেকে আগত নেতৃবৃন্দ উপরোক্ত মন্তব্য করেন। নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত প্রায় সকল রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ক্ষমতাসীন দলের সভানেত্রী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংলাপের বিষয়ে জনগণকে সুস্পষ্ট কোন বার্তা দেয়ার পূর্বেই নির্বাচন কমিশন কর্তৃক তড়িঘড়ি তফসীল ঘোষণা করাকে একটি রাজনৈতিক প্রহসন বলে অভিহিত করেছেন নেতৃবৃন্দ।
সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয় যে, অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচনী পরিবেশ তৈরির পূর্বশর্ত সংসদ বিলুপ্ত করার মাধ্যমে সকল দলের সম সুযোগ নিশ্চিত হলে একাদশ সংসদ নির্বাচনে মুসলিম লীগ অংশগ্রহণ করবে। জেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দকে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়। নির্বাহী সভাপতি আব্দুল আজিজ হাওলাদার, মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের, স্থায়ী কমিটির সদস্য, আতিকুল ইসলাম, আব্দুর রশিদ চৌধুরী, আনোয়ার হোসেন আবুড়ী, মোর্তুজা আলী চৌধুরী ছাড়াও আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন, নীলফামারীর কাজী আশফাক, চাঁদপুরের আফতাব হোসেন স্বপন, ফেনীর কাজী এ.এ কাফী, বাগেরহাটের শেখ এ সবুর ও এস.এইচ খান আসাদ, বাক্ষ্রণবাড়ীয়ার প্রকৌশলী ওসমান গনি, ঝালকাঠির আবু সাইদ মোল্লা, ভোলার এড. জাহাঙ্গীর আলম, হাতিয়ার এড. আব্দুল মান্নান, কুষ্টিয়ার আবদুল খালেক, পটুয়াখালীর মশিউর রহমান কায়েশ, সিলেটের আনোয়ার উদ্দীন বোরহানাবাদী, লক্ষ্মীপুরের এড. জসীমউদ্দিন, শেরপুরের কাজী আখতারুজ্জামান, এ্যড সেলিম, আতিকুর রহমান আতিক, চট্টগ্রামের লিয়াকত আলী,কাজী সেলিম,লালমনিরহাটের মোঃ বাদশা মিয়া, কুমিল্লার এড. আশরাফুল ইসলাম, খোন্দকার জিল্লুর রহমান, ঢাকার শহুদুল হক ভূঁইয়া, কুদরত উল্ল্যাহ, মামুনুর রশীদ প্রমুখ।
সংবাদ প্রেরক, শেখ এ সবুর, প্রচার সম্পাদক

Share.
Loading...

Comments are closed.