যোগ্য নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠায় মূখ্য ভূমিকা নিতে হবে –চরমোনাই পীর

যোগ্য নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠায় মূখ্য ভূমিকা নিতে হবে –চরমোনাই পীর

0

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, দেশের রাজনীতিতে সৎ ও যোগ্য নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে হলে ওলামায়ে কেরামকে মূখ্য ভূমিকা পালন করতে হবে। ওলামায়ে কেরাম রাজনীতিতে পিছিয়ে থাকার কারণে আজ দুর্নীতিবাজরা দেশ শাসন করছে। ফলে দেশে কর্তৃত্ববাদী শাসন চলছে। তিনি বলেন, সমাজ ও রাষ্ট্রে নেতৃত্ব দেওয়াটাও ওলামায়ে কেরামের দায়িত্ব। ইসলামী রাজনীতিতে সম্পৃক্ত না হলে, শোষিত-বঞ্চিত, মজলুম গণ-মানুষের পক্ষে ভূমিকা না রাখলে সমাজের নেতৃত্ব কোন দিনও জালেমের হাত থেকে আলেমদের হাতে আসবে না। তিনি বলেন, সমাজব্যবস্থা আজ ভেঙ্গে পড়েছে। কোথাও শান্তি নেই, নিরাপত্তা নেই। ক্ষমতাসীনদের যাঁতাকলে সাধারণ মানুষ নিষ্পেষিত। মানুষ অধিকার বঞ্চিত। অধিকার পেতে দিকবিদিক ছুটাছুটি করছে। তিনি বলেন, একটি আদর্শিক পরিবর্তন ছাড়া জাতির মুক্তির কোন পথ নেই। তাই আগামীতে হাতপাখাকে নির্বাচিত করে জাতির ভাগ্য পরিবর্তন করতে হবে। সম্মেলনশেষে হাফেজ মাওলানা ইউনুছ ঢালীকে সভাপতি, মুফতী হেদায়েতুল্লাহ আজাদীকে সহ-সভাপতি মাওলানা বাছির মাহমুদকে সাধারণ সম্পাদক করে ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ কমিটি ঘোষণা করা হয়।
আজ সোমবার বিকেলে গুলিস্তানস্থ কাজী বশির মিলনায়তনে জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আয়োজিত নগর ওলামা-মাশায়েখ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। সংগঠনের দক্ষিণ আহ্বায়ক মাওলানা ইউনুছ ঢালীর সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব মাওলানা বশির মাহমুদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল্লামা নুরুল হুদা ফয়েজী, প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী, অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, গাজী আতাউর রহমান, এডভোকেট শেখ আতিয়ার রহমান, মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, কেএম আতিকুর রহমান, শেখ ফজলুল করীম মারুফ,মুফতী ওয়াহিদুল আলম, ঢাকা-৭ আসনের প্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুর রহমান ও মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওয়াদুদ প্রমুখ।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, প্রচলিত শাসনব্যবস্থা মানুষকে মানুষ হিসেবে স্বীকৃতি দিতেও নারাজ। মানুষের অধিকার বলতে নেই। সর্বক্ষেত্রে জিম্মি জিম্মি অবস্থা। প্রচলিত এ সমাজব্যবস্থার পরিবর্তে একটি ভারসাম্যপূর্ণ সমাজব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে ওলামা-মাশায়েখের ভূমিকা অনস্বীকার্য। দেশের ওলামায়ে কেরাম ঐক্যবদ্ধ হলে অল্প সময়েই ভারসাম্যহীন সমাজব্যবস্থার পরিবর্তন ঘটিয়ে গণমানুষের কাঙ্খিত মুক্তির ঠিকানা ইসলামকে রাষ্ট্রীয়ভাকে প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব।
তিনি বলেন, পীর সাহেব চরমোনাই রহ : কখনো বাতিলের সাথে আপোষ করেননি। মানব রচিত মতাদর্শের লালনকারী কোন দলের নেতৃত্বে ক্ষমতার জন্য কখনো জোট করেননি। তাই আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ঘোষণা করেছেন।
সভাপতি তার বক্তব্যে মাওলানা ইউনুছ ঢালী বলেন, ওলামা কেরামকে নায়েবে নববীর দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে। এ অনুভুতি নিয়ে কাজ করলে ইসলামী শাসন প্রতিষ্ঠা হতে বেশি সময় লাগবে না।
বার্তাপ্রেরক – মুফতী বশির উদ্দিন মাহমুদ

Share.
Loading...

Comments are closed.