Sunday , March 29 2020
Home / বাংলা বিভাগ / খবর / দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়
ad
দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়
Islami Andolan Bangladesh Logo

দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়

ইসলামী আন্দোলন
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, আমরা জনগণের কল্যাণ এবং ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেয়ার জন্য রাজনীতি করি। তিনি বলেন, রাজনীতিতে মানুষের কল্যাণের জন্য, যে রাজনীতিতে মানুষের কল্যাণ নেই, জনমনে সংশয় ও শঙ্কা বিরাজ করে সেই রাজনীতি কারো কাম্য হতে পারে না। তিনি বলেন, বর্তমানে মানুষ স্বাধীনভাবে কথা বলতে ও কাজ করতে পারে না। কোটা বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রদের উপর সরকার দলীয় ক্যাডারদের নির্মম নির্যাতন বিশ্ববিবেককে নাড়িয়ে তুলছে। এমন নির্যাতন কোন সভ্য সমাজে চলতে পারে না। বুধবার বিকেলে রাজধানীর কাজী আলাউদ্দিন রোডের ওয়ান স্টার হোটেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা-৭ আসনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির ঈদ পূনর্মিলনী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য প্রার্থী ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক আলহাজ্ব আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং সমন্বয়কারী মুহাম্মদ সুলতান মাহমুদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন সংগঠনের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম। বক্তব্য রাখেন অর্থ সমম্বয়কারী হাজী মুহা. জাহাঙ্গীর আলম, কোতোয়ালী থানা সমন্বয়কারী এড. লুৎফুর রহমান শেখ লালবাগ থানা সমন্বয়কারী হাজী আলী আকবর, চকবাজার থানা সমন্বয়কারী হাজী আহসান উল্লাহ, বংশাল থানা সমন্বয়কারী হাজী আব্দুল খালেক প্রমুখ।
মাওলানা গাজী আতাউর রহমান বলেন, জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনতে হবে। সরকার জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। তিনি বলেন, গাজীপুর সিটি নির্বাচনের পর জাতীয় নির্বাচন নিয়ে দেশবাসির মধ্যে শঙ্কা বেড়ে গেছে। এমতাবস্থায় জনমনের শঙ্কা দূর করে সকল দলকে নির্বাচনে আনতে সরকারকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য প্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুর রহমান বলেন, দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের ইতিহাস আমাদের দেশে নেই। বর্তমান নির্বাচন কমিশন সরকারের আজ্ঞাবহ ও পুতুল হিসেবে পরিচয় দিয়েছে। তাই সংবিধানে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিল পুনরায় সংযোজন করতে হবে। – প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

adadad