News update
  • Cyclone Remal: Launch services suspended on all routes     |     
  • Cyclone 'Remal' may cross BD-WB coasts by Sunday midnight     |     
  • Biman suspends all Cox's Bazar bound flights Sunday     |     
  • Cyclone Remal: Ctg Port alert 3, Payra Port danger signal 7     |     

ঈদের পর থেকে শনিবার ক্লাস করতে হবে না, আশা শিক্ষামন্ত্রীর

গ্রীণওয়াচ ডেস্ক ক্যাম্পাস 2024-05-12, 7:10pm

21d621a9c51f407555395d66da3ca8035fbdc2a0c2006cf4-1-142dba8f8d8173d6894c7b8ffa9d18061715519461.jpg




ঈদুল আজহার পর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শনিবার ক্লাস নিতে হবে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

রোববার (১২ মে) সচিবালয়ে মন্ত্রণালয় সভাকক্ষে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণার পর সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শনিবার ছুটি নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‌‌‘আমরা এ বিষয়ে পর্যায়ক্রমে সিদ্ধান্ত নেব। বর্তমান পাঠ্যক্রমে শিক্ষার্থীদের বাড়ির কাজ করতে, একটি নির্দিষ্ট সময় দেয়ার জন্য শনিবার স্কুল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছিল। আরও কিছু বিষয় ছিল। যেহেতু আমরা প্রায় ৯টি কর্মদিবস পাইনি সেহেতু আমরা চেষ্টা করছি, শনিবারে স্কুল খোলা রাখার মাধ্যমে সেই কর্মদিবসগুলো যেন আমরা পাই। সেজন্য এ ব্যবস্থা। তবে এটা সাময়িক।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘এটা স্থায়ী কোনো সিদ্ধান্ত না। আমরা অবশ্যই চাই, শিক্ষকদের একটা নির্দিষ্ট সময়ে বিশ্রাম দেয়ারও প্রয়োজন আছে। আবার শিক্ষার্থীদেরও বিশ্রামের প্রয়োজন আছে। শিক্ষার্থীরা বাড়ির কাজ যথাসাধ্য করছে কি না- সেটা দেখার বিষয় আছে। অতিমাত্রায় চাপের মধ্যে সবদিন শ্রেণিকক্ষে পাঠদান করার ক্ষেত্রে যে খুব বেশি ভালো ফল হবে, তা না। এটা সাময়িক বিষয়। আশা করছি, ঈদুল আজহার পরে হয়তোবা এটা চলমান রাখতে হবে না, আশা করছি।’

এর আগে রোববার (৫ মে) থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলেছে। আর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পর থেকে সাপ্তাহিক ছুটির দিন শনিবারও চলবে পাঠদান। শনিবার (৪ মে) শিক্ষা মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের গত ২৫ এপ্রিলের প্রজ্ঞাপনের শর্ত পালন সাপেক্ষে রোববার (৫ মে) থেকে দেশের সব মাধ্যমিক স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের গত ২৫ এপ্রিলের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছিল, ‘তাপদাহ সহনীয় পর্যায়ে না আসা পর্যন্ত অ্যাসেম্বলি বন্ধ থাকবে। শ্রেণি কার্যক্রমের যে অংশ শ্রেণিকক্ষের বাইরে পরিচালিত হয়ে থাকে এবং যেসব কার্যক্রমে সূর্যের আলোর সংস্পর্শে আসতে হয়, সেসব কার্যক্রম সীমিত থাকবে। তাপদাহ এবং অন্যান্য কারণে শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ থাকার ফলে যে শিখন ঘাটতি তৈরি হয়েছে, তা পূরণ এবং নতুন শিক্ষাক্রম অনুযায়ী শিখন ফল অর্জনের জন্য পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত শনিবারও শ্রেণি কার্যক্রম চলবে। তথ্য সূত্র সময় সংবাদ।