News update
  • Dhaka’s air quality ‘unhealthy’ Friday morning     |     
  • Landslide kills couple in Cox’s Bazar Sadar     |     
  • “Talks about ex-DMP Commissioner seem based on speculation”     |     
  • Donors “deeply concerned” by worsening Rakhine situation     |     

মেধাবী শিক্ষার্থীরা বিদেশমুখী কেন?

গ্রীণওয়াচ ডেস্ক ক্যাম্পাস 2024-06-06, 10:38am

sddgdgd-bc1aa2c7d06e3a92bf8805daed227af51717648818.jpg




চাকরির বাজারে কর্মসংস্থানের স্বল্পতা ও গবেষণার উপযুক্ত ক্ষেত্র না থাকায় দিন দিন বিদেশমুখী হচ্ছেন মেধাবী শিক্ষার্থীরা। তাদের মতে, মেধার যথাযথ মূল্যায়ন হয় না দেশে। তাছাড়া, বিদেশের মাটিতে ক্যারিয়ার গঠন তুলনামূলক সহজ। তবে উচ্চশিক্ষাকে পুঁজি করে যাতে দেশের মেধাপাচার না হয়, সে বিষয়ে সবাইকে সর্তক থাকার তাগিদ শিক্ষাবিদদের।

সংশ্লিষ্টরা জানান, শিক্ষার্থীদের উন্মুক্ত আড্ডায় বিসিএস পরীক্ষা অন্যতম অনুষঙ্গ। সেসব আড্ডা-গল্পে অন্যান্য বিষয়ের সঙ্গে নতুন করে যোগ হয়েছে উচ্চশিক্ষায় বিদেশ যাওয়া। দেশের বাজারে চাকরির স্বল্পতা, মানসম্মত শিক্ষার অভাব, গবেষকদের যথাযথ মূল্যায়ন না হওয়াসহ নানা কারণে অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী পাড়ি জমাচ্ছেন বিদেশে। কেউ কেউ উচ্চশিক্ষা নিয়ে দেশে ফিরলেও বেশিরভাগই স্থায়ী হচ্ছেন বিভিন্ন দেশে। ইদানীং এ তালিকায় অংশ নেয়া বাড়ছে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীদের।

শিক্ষার্থীদের ভাষ্যমতে, বাংলাদেশের পরিপ্রেক্ষিতে একজন শিক্ষার্থী অনার্স ও মাস্টার্স পাস করে বেকার থাকছেন। একদিকে বিসিএসসহ সরকারি চাকরিতে তীব্র প্রতিযোগিতা, অন্যদিকে বেসরকারি খাতেও নানা চ্যালেঞ্জ উচ্চশিক্ষিত তরুণদের হতাশ করছে। এ অবস্থায় সামাজিক মর্যাদা বাড়ানোর পাশাপাশি অর্থনৈতিক দৈন্যদশা কাটাতে উন্নত দেশ বেছে নিচ্ছেন তারা।

রাবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী সালমান শাকিল বলেন, ‘দেশ আমাদের ওইভাবে মূল্যায়ন করছে না। অন্যান্য দেশে চাকরি ও উচ্চশিক্ষার সুযোগ বেশি। তাই সেখানে যেতে আমরা আগ্রহী।’

রাবির বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও শিক্ষক অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম বলেন, ‘আমরা চাই বিশ্ববিদ্যালয়ের আরও বেশি শিক্ষার্থী বিদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপ পাক। এর মাধ্যমে উচ্চশিক্ষা এবং বিশ্বের উন্নত গবেষণাগারে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হয়ে তারা নিজ নিজ ফিরে আসুক।’

রাবির ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘দেশের মেধা যেনো পাচার না হয়, সেদিকে সবার দৃষ্টি রাখতে হবে। আমরা চাই শিক্ষার্থীরা উন্নত বিশ্বে শিক্ষা নিয়ে ফিরে আসুক। মেধাবীরা বিদেশে স্থায়ী না হয়ে দেশের উন্নয়ন করুক, এটাই আমাদের আশা।’

উল্লেখ্য, সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে আলাদা তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি গবেষণায় ফুল ফান্ডেড স্কলারশিপ পেয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিভাগের একই ল্যাবের পাঁচ শিক্ষার্থী। সময় সংবাদ