News update
  • Dhaka world's most polluted city on Wednesday     |     
  • Saudi Arabia names Crown Prince Salman prime minister, too     |     
  • Cuba without power for Hurricane Ian; Florida faces flood     |     
  • US, NATO condemn Kremlin-staged 'referendums' in Ukraine     |     

জাতিসংঘ শীর্ষ সম্মেলনে ইউক্রেন, খাদ্য নিরাপত্তা মূল আলোচ্য হয়ে উঠবে

গ্রীণওয়াচ ডেস্ক error 2022-09-19, 7:53am

019e0000-0aff-0242-3cc1-08da8be320ca_w408_r1_s-5de47b821bbee3c4970ecdb862469c211663552382.jpg




এ বছর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে বিশ্বনেতাদের সমাবেশটি রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার পরপরই অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। একইসাথে ইউক্রেনে যুদ্ধটি সম্ভাব্য চূড়ান্ত পর্বে প্রবেশ করতে চলেছে।

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেস রানীর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অনুপস্থিত থাকবেন, কারণ সোমবার শিক্ষা বিষয়ক এক সম্মেলন তত্ত্বাবধান করতে তাকে নিউইয়র্কে থাকতে হচ্ছে। এরপর মঙ্গলবার সকালে তিনি বার্ষিক বিতর্কটির উদ্বোধনীতে অংশগ্রহণ করবেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, এটা “অচিন্তনীয়” যে তিনি সেটিতে অনুপস্থিত থাকবেন।

আয়োজক দেশের নেতা হিসেবে, প্রথাগতভাবে মঙ্গলবার সকালে দ্বিতীয় রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে জো বাইডেনের ঐ পরিষদে ভাষণ দেওয়ার কথা। তবে, সোমবার এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করার কারণে তার ভাষণটি বুধবার স্থানান্তর করা হয়েছে বলে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বা ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি, দুজনের কেউই নিউইয়র্কে যাচ্ছেন না। কিন্তু তা সত্ত্বেও তাদের সংঘাতটিই আলোচনার প্রধান বিষয় হয়ে উঠবে।

জাতিসংঘের ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপ-এর পরিচালক, রিচার্ড গোয়ান ভিওএ-কে বলেন, “আমার ধারণা জো বাইডেন ও অন্যান্য পশ্চিমা নেতারা এই সুযোগে যুদ্ধটির কারণে রাশিয়ার বিরুদ্ধে থাকা তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করবেন।”

তিনি বলেন যে, পশ্চিমা নেতারা এমন সব অপশ্চিমা দেশগুলোর সমর্থন জোটানোরও চেষ্টা করবেন, যেগুলো সম্পর্কে তারা মনে করেন যে, ঐ দেশগুলো কোন পক্ষ সমর্থন বা রাশিয়ার সমালোচনা করা এড়িয়ে যাচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত লিনডা থমাস-গ্রীনফিল্ড শুক্রবার সাংবাদিকদের বলেন যে, ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণ “জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠার মূলনীতিগুলোকে পরীক্ষা করে”। তিনি সেই মূলনীতিগুলো পরিত্যাগ না করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অনুরোধ করেন।

খাদ্য সংকট

ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণ বৈশ্বিকভাবে খাদ্য, সার ও জ্বালানীর মূল্য বৃদ্ধি করেছে। এর ফলে দুর্বল দেশগুলো একেবারে শেষপ্রান্তের কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছে।

বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির প্রধান ডেভিড বিসলি সতর্ক করেছেন যে, ৮২টি দেশে ৩৪ কোটি ৫০ লক্ষ মানুষ পর্যন্ত চরম খাদ্য অনিরাপত্তার মধ্যে রয়েছে, বা “অনাহারের দিকে এগিয়ে চলেছে”।

হর্ন অফ আফ্রিকা অঞ্চলের জরুরি প্রয়োজনগুলোতে সাড়া দেওয়ার বিষয়ে বুধবার এক উচ্চপর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে বৈশ্বিক খাদ্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র, আফ্রিকান ইউনিয়ন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও স্পেন মঙ্গলবার খাদ্য নিরাপত্তা বিষয়ক এক সম্মেলনে সহ-সভাপতিত্ব করবে। তথ্য সূত্র ভয়েস অফ আমেরিকা বাংলা।